রেমিটেন্স কি এবং কিভাবে কাজ করে?

 

রেমিটেন্স শব্দটির সাথে আমরা কমবেশি সবাই পরিচিত। কিন্তু রেমিটেন্স আসলে কি আমরা হয়তো অনেকেই জানিনা। আজকের আমাদের নতুন আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব রেমিটেন্স নিয়ে বিস্তারিত।

 • রেমিটেন্স কি?

রেমিটেন্স শব্দটি এসেছে রেমিট শব্দ থেকে। রেমিট শব্দের অর্থ হলো ফেরত পাঠানো।

বিদেশে কর্মরত ব্যক্তিরা বিদেশ থেকে আয়কৃত তাদের আত্মীয় বা পরিবারের জনকে যে অর্থ পাঠায় তাই রেমিটেন্স। 

• দেশীয় মানুষ বিদেশে কেন যায়?

উন্নত জীবন, উন্নত বেতন, উন্নত বাড়িঘর এসবের আশায় মানুষ নিজ দেশ থেকে বিদেশে পাড়ি জমায়। এসব বিদেশে কর্মরত প্রবাসীদের পাঠানো টাকা তাদের নিজ দেশের দেশের অর্থনীতিকে উন্নত করে। যার ফলে তার নিজ দেশের রেমিটেন্স বাড়ার সাথে সাথে ঐ দেশের জিডিপি এবং মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পায়। ব্যাংকিং চ্যানেলে আমাদের ট্রেডিশনাল ব্যাংকিং নীতি অনুযায়ী বিদেশ থেকে আসা সকল টাকাই রেমিটেন্স।

ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করা টাকা কি রেমিটেন্স?

অনেকেই নিজের দেশে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে অথবা বিদেশি কোন কোম্পানিতে চাকরি করে ঘরে বসেই বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে কিন্তু এগুলো রেমিটেন্স এর অন্তর্ভুক্ত নয়। ঘরে বসে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করাকে বৈদেশিক রপ্তানির অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ফ্রিল্যান্সিং এবং দেশে বসে বিদেশি কোম্পানিতে চাকরি করা এগুলো সেবা রপ্তানির অন্তর্ভুক্ত। 

রেমিটেন্স হওয়ার মূল শর্ত

অর্থাৎ রেমিটেন্সের একটি মূল শর্ত হলো বিদেশে অবস্থান করে দেশে টাকা পাঠানো। সকল দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুদ্রা বিনিময় এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে প্রতিবছর রেমিটেন্সের প্রবাহ নির্ণয় করে বিশ্ব ব্যাংক।

সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স অর্জন করে কারা?

2020 সালে বিশ্বের বিশ্ব সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স অর্জনকারী দেশ ছিল ভারত। গত বছর রেমিটেন্স থেকে ভারতের আয় হয়েছে 83 বিলিয়ন মার্কিন ডলারস। 2008 সাল থেকে ভারত রেমিটেন্স আয়ে শীর্ষ ধরে রেখেছে। 

রেমিটেন্স বাজারে বাংলাদেশের অবস্থান কত?

শীর্ষ রেমিটেন্স অর্জনকারী দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান অষ্টম। বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের রেমিটেন্স এর পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। বাংলাদেশের গার্মেন্টস শিল্প অর্থাৎ তৈরি পোশাক শিল্পের অবদানের পরেই প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে। প্রবাসী শ্রমিকরা দেশে যে পরিমাণ রেমিটেন্স পাঠাচ্ছেন তা বাংলাদেশের মোট রপ্তানি আয়ের প্রায় অর্ধেক।

প্রবাসীদের পাঠানো জিডিপির পরিমাণ

এছাড়া অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের অবদান মোট জিডিপির প্রায় 12 শতাংশ। বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী করোনাকালে বাংলাদেশি প্রবাসীরা রেকর্ড পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা পাঠিয়েছেন দেশে। করোনার আগের বছর 2019 সালে প্রবাসীরা পাঠিয়েছিল 1820 কোটি ডলার আর করোনা মহামারী সময় পাঠিয়েছে 2478 কোটি মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রবাসীদের সাপোর্ট

বাংলাদেশ সরকার বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠানোকে উৎসাহিত করতে 2019-20 অর্থবছর থেকে 2 শতাংশ হারে প্রণোদনা দিচ্ছে অর্থাৎ ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিটেন্স পাঠালে 100 টাকায় 2 টাকা করে নগদ প্রণোদনা পাচ্ছেন প্রবাসীর স্বজনেরা। 2021 থেকে 2022 অর্থবছরের বাজেটে রেমিটেন্স খাতে প্রণোদনার জন্য 4 হাজার কোটি টাকা বাজেট করা হয়েছে।

প্রবাসী বাংলাদেশীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি লোক রয়েছে সৌদি আরবে। পরেই রয়েছে মালোশিয়া, আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, সিঙ্গাপুর, ব্রুনাই, দক্ষিণ কোরিয়াসহ পৃথিবীর বেশ কয়েকটি দেশে। যেসব দেশ থেকে সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স অন্য দেশে যায় সেগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

2020 সালে আমেরিকা থেকে 68 বিলিয়ন মার্কিন ডলার অন্য দেশে রেমিটেন্স হিসেবে গেছে। রেমিটেন্স দেয়ার ক্ষেত্রে এর পরে রয়েছে আরব আমিরাত এবং সৌদি আরব। হাজার বিশ সালে সৌদি আরব থেকে 35 মিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স অন্য দেশে গেছে। 

আমাদের শেষ কথা:

আশা করি আপনারা সম্পূর্ণ বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন যে রেমিট্যান্স কি এবং রেমিটেন্স কিভাবে কাজ করে এবং বাংলাদেশের কেমন পরিমাণ এবং কোন কোন দেশে প্রবাসীরা থাকে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে। রেমিটেন্স বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখে। আমরা আজ বাংলাদেশের যে উন্নতি দেখতে পাচ্ছি তার অনেকটাই অবদান রয়েছে বিদেশ থেকে পাঠানো রেমিটেন্স যোদ্ধা তথা প্রবাসীদের পাঠানো বৈদেশিক মুদ্রার জন্য। আমাদের সকল প্রবাসী ভাইদের সম্মান করা উচিত এবং তাদের যথাযথ মর্যাদা দেওয়া উচিত। 

আজকের আর্টিকেলটি এই পর্যন্তই ছিল, যদি ভালো লাগে অবশ্যই আমাদের সাইটের সাথে থাকবেন এবং নিয়মিত ব্লগ পড়বেন। আরেকবার কথা হবে নতুন কোন ব্লগে। ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের সম্মান দিবেন।

Sheikh AL Zihad

আসসালামু আলাইকুম সবাইকে! আমি শেখ আল জিহাদ—কাজ করছি গ্রাফিক্স ডিজাইন, কনটেন্ট রাইটিং, বিজনেস এন্ড মার্কেটিং; সহ আরো কিছু বিষয় নিয়ে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন